Home » সেপ্টেম্বরেই আসতে পারে করোনার টিকা!

সেপ্টেম্বরেই আসতে পারে করোনার টিকা!

কর্তৃক BDHeadline

‘চলতি বছর সেপ্টেম্বরের শেষ এই বাজারে আসতে পারে করোনাভাইরাসের টিকা’। এমনই দাবি করলেন বিশ্বের বৃহত্তম ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক সংস্থার প্রধান।

সিরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার প্রধান আদার পুনাওয়ালা জানালেন আগামী মে মাস থেকেই শুরু হয়ে যাবে ভ্যাকসিনের মাস প্রোডাকশন। ইবোলার ভ্যাকসিনের আবিষ্কারক গবেষক দলের সঙ্গে কাজ করছে এই সংস্থা।

ইতিমধ্যেই মানুষের ওপর পরীক্ষা শুরু হয়ে গিয়েছে টিকার‌। তার ফলে সেপ্টেম্বরে ট্রায়াল সফলভাবে শেষ হলেই মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া যাবে এই ভ্যাকসিন। কিন্তু বাজারে এলে কত দাম হবে এই ভ্যাকসিনের?

করোনাভাইরাসের টিকার দাম ১০০০ টাকা হতে পারে বলে জানিয়েছেন পুনাওয়ালা। ব্রিটিশ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকদের সঙ্গে কাজ করার মাধ্যমে এই টিকা তৈরির কাজে এগিয়েছে পুনের সিরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া।

কিন্তু অন্যান্য গবেষকরা যেখানে বলছেন এই টিকা বাজারে আসতে এখনো অন্তত এক থেকে দেড় বছর সময় লাগবে, সেখানে এত কম সময় বাজারের পৌঁছে যাওয়ার দাবি কী করে করছে সিরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া?

পুনাওয়ালা জানালেন, “অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের সঙ্গে সমন্বয়ে কাজ করার ফলেই এই সময়টা অনেকটা কমেছে। নয়তো আমরাও সেইরকমই সময় লাগবে ভেবেছিলাম।”

প্রসঙ্গত, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এই গবেষকদের দলই এর আগেই ইবোলার টিকা বাজারে এনেছিলেন।

কোডাজেনিক্স-এর মত মার্কিন সংস্থার সঙ্গে কাজ চলাকালীন অনেকটাই বেশি সময় লাগবে বলে মনে করা হচ্ছিল। কিন্তু গত সপ্তাহে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে কাজ শুরু হওয়ার পর অনেকটাই বেড়েছে কাজের গতি। এমনকি ২৩ এপ্রিল থেকে মানুষের ওপর এই টিকার ট্রায়াল শুরু হয়ে গিয়েছে।

আদার পুনাওয়ালা বললেন, “অন্যান্য সমস্ত কাজ বন্ধ রেখে করোনা ভাইরাস এর উপর সম্পূর্ণ জোর দেওয়া হয়েছে। সেই কারণে দাম ১০০০ টাকায় পৌঁছাতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। কিন্তু দাম কত হবে এখনো সেই বিষয়ে কিছু বলা সম্ভব নয়।”

সূত্র: জিনিউজ

সম্পর্কিত পোস্ট