সফল হওয়ার ২০ পথ

14
ছবি: সংগৃহীত

সফল হওয়ার রাস্তার সন্ধান পাওয়া মোটেই সহজ কাজ নয়। অনেকেই সারা জীবন এ পথের সন্ধানে কাটিয়ে দেন, কিন্তু সফল হতে পারেন না। তবে কিছু উপায় রয়েছে যা আপনাকে অপ্রত্যাশিতভাবে সফল করে তুলতে পারে। এ লেখায় তুলে ধরা হলো তেমন কয়েকটি উপায়। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।

১. জন্ম তারিখ
জন্ম তারিখ অপ্রত্যাশিতভাবে অনেকের সাফল্য এনে দিতে পারে। এক্ষেত্রে উদাহরণ হিসেবে বলা যায় বিভিন্ন রাশি কিংবা মাসের কথা, যাদের সাফল্য অন্যদের তুলনায় বেশি দেখা যায়। এক্ষেত্রে গবেষকরা কিছু ব্যাখ্যাও দিয়েছেন। যেমন কোনো বছর শুরুর আগে যে শিশুরা জন্ম নেয় তারা পড়াশোনা শুরুর সময় অন্য শিশুদের তুলনায় সাবালক হতে কিছুটা বেশি সময় পায়। এতে তারা বিভিন্ন দিক দিয়ে কিছুটা এগিয়ে থাকে এবং আদতে জীবনের নানা ক্ষেত্রেও অপ্রত্যাশিতভাবে এগিয়ে যায়।

২. পরিবারের বড় ভাই
আপনি যদি পরিবারের বড় ভাই হন তাহলে সফল হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। কারণ পরিবারের বড় ভাই অধিকাংশ ক্ষেত্রে দায়িত্ব নিতে পছন্দ করে। আর এ কারণে তার সাফল্য পাওয়ার হারও বেশি।

৩. ছোটবেলার স্কুল
এ বিষয়টি বহুদিন ধরেই দেখা যায় যে, ব্যয়বহুল স্কুল থেকে পড়াশোনা করেও শিক্ষার্থীদের কর্মজীবনে প্রবেশ করে তাদের সাফল্য একই থাকে। তবে প্রায়ই পাবলিক স্কুলের শিক্ষার্থীরা সাফল্যের পথে অপ্রত্যাশিতভাবে এগিয়ে নিয়ে যায়।

৪. অংকের মাথা
স্কুলে যারা অংকে ভালো হয়, তারা বাস্তব জীবনে নানাক্ষেত্রে এগিয়ে থাকে। অংকে ভালো ফলাফল শুধু মেধাই নির্দেশ করে না এটি বিজ্ঞানে শিশুকে এগিয়ে যেতে উৎসাহ যোগায়। আর এ কারণে শিশু যদি অংকে ভালো হয় তাহলে পেশাজীবনেও সে ভালো একটি স্থান অর্জন করে।

৫. ছোটবেলায় খেলাধুলা
খেলাধুলা শুধু শরীরের নয়, মনের জন্যও উপকারি। শিশুর মেধা বিকাশে খেলাধুলার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। যে শিশুরা খেলাধুলায় অভ্যস্ত হয়, তাদের মেধাও ভালো হয়। বড় হয়ে তারা যথেষ্ট সফলতাও লাভ করে।

৬. সামরিক বাহিনীর কাজ
দেখা গেছে যারা সামরিক বাহিনীর কাজে নিয়োজিত থাকেন তারা পরবর্তীতে নানাধরনের কাজে নেতৃত্ব দিতে এগিয়ে যান। আর এ কারণে সামরিক বাহিনীর সদস্যরা নেতৃত্ব দেওয়ার কাজে পরবর্তীতে সফল হন।

৭. ভালো ঘুম
ভালোভাবে ঘুমের ওপর নির্ভর করে অনেকেরই স্বাস্থ্যগত উন্নতি ও মানসিক সুস্থতা দেখা যায়। এ কারণে যাদের ভালো ঘুম হয় তাদের সাফল্যও বেশি থাকে।

৮. ভালো বস
কর্মজীবনে যারা ভালো বস পান তারা জীবনে সফল হয়ে থাকেন। নানাভাবে উৎসাহ-উদ্দীপনা কিংবা প্রণোদনার মাধ্যমে ভালো কাজ আদায় করে নেন ভালো বসেরা। আর এতে আদতে লাভবান হন কর্মী।

৯. লম্বা মানুষ
গবেষণায় দেখা গেছে, লম্বা মানুষেরা খাটোদের তুলনায় ভাগ্যবান হয়ে থাকে আয়ের দিকেও। নানা যোগ্যতার কারণে তাদের আয় বেশি হয়, যা অপ্রত্যাশিতভাবে তাদের এগিয়ে রাখে।

১০. আকর্ষণীয় মানুষ
আকর্ষণীয় মানুষ স্বভাবতই অন্যদের মন জয় করেন। আর এটি তাদের অন্য মানুষের সহানুভূতি ও মনোযোগ আকর্ষণে সহায়তা করে। আর এ গুণটি অন্যদের তুলনায় সফল হতেও সহায়তা করে।

১১. রসবোধ
সঠিকভাবে ‘সেন্স অব হিউমার’ থাকলে মানুষ সফল হয়ে ওঠেন। এ কারণে যাদের রসবোধ রয়েছে, তারা অন্যদের তুলনায় সফল হয়ে ওঠেন।

১২. সঠিক পোশাক
পোশাক মানুষকে নানা ক্ষেত্রে এগিয়ে দেয়। যারা সঠিকভাবে পোশাক পরতে স্বাচ্ছন্দবোধ করেন তারা স্বভাবতই অন্যদের তুলনায় জীবনের নানা ক্ষেত্রে এগিয়ে যান।

১৩. বিবাহিত হওয়া
পুরুষের সাফল্যের ক্ষেত্রে বিবাহিত হওয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। গবেষণায় দেখা গেছে, বিবাহিত পুরুষকে অন্যরা দায়িত্ববান বলে মনে করে। আর এ কারণে বিবাহিত পুরুষের বেতনও বেড়ে যায়।

১৪. নিয়ম ভঙ্গকারী শিশু
যে শিশুরা নিয়ম ভঙ্গ করতে ভালোবাসে তারা বড় হয়ে যে পিছিয়ে থাকে, তা নয়। দেখা গেছে, যারা ছোটবেলায় নিয়ম ভঙ্গ করত তারা বড় হয়ে যথেষ্ট মেধার পরিচয় দেয় এবং নানা ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করে।

১৫. নিজের গুণমুগ্ধ
নিজের গুণে নিজেই মুগ্ধ মানুষেরা প্রায়ই সাফল্য পান। মানুষের ব্যক্তিত্বের এ বিষয়টি প্রায়ই অন্যদের অনুপ্রাণিত করে। যারা নিজের গুণমুগ্ধ তারা চাকরির ইন্টারভিউ কিংবা অন্যান্য ক্ষেত্রে নিজের গুণগান গাইতে পারদর্শী হন। এটি তাদের সামনে এগিয়ে নেয়।

১৬. বিশ্বাসভাজন চেহারা
কারো কারো চেহারাতেই বিশ্বাসভাজন একটি ভাব উঠে আসে। আর এটি তাদের সাফল্যের পথেও অনেকদূর এগিয়ে নেয়। বহু মানুষই এ ধরনের মানুষকে বিশ্বাস করতে ভালোবাসে।

১৭. গভীর কণ্ঠ
কিছু মানুষের কণ্ঠেই যেন নেতৃত্ব প্রকাশ পায়। এ ধরনের মানুষকে অন্যরা নেতৃস্থানীয় হিসেবেই দেখতে ভালোবাসে। আর এ কারণে তারা প্রায়ই জীবনে উচ্চতর স্থানে চলে যায়।

১৮. হালকা-পাতলা
ওজন যাদের বেশি, তাদের চাকরি জীবনে সাফল্যের হার হালকা-পাতলা মানুষদের তুলনায় কম। ভারি দেহের অধিকারীদের চাকরি পাওয়া কঠিন বলেই জানা গেছে গবেষণায়।

১৯. মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণে সক্ষমতা
যাদের মানসিক চাপ সহ্য করার ক্ষমতা বেশি তারা স্বভাবতই নেতৃত্বের দিক দিয়ে এগিয়ে থাকেন। এ কারণে দেখা যায় মানসিক চাপ যাদের ওপর তেমন প্রভাব ফেলতে পারে না তারা উচ্চতর অবস্থানে চলে যান।

২০. বহির্মুখী চরিত্র
অন্তর্মুখী চরিত্রের মানুষেরা সাধারণত নিজের মাঝে গুটিয়ে থাকতে পছন্দ করেন। আর এ কারণে তারা প্রায়ই নানা ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়েন। তবে বহির্মুখী চরিত্রের মানুষেরা বহু মানুষের সঙ্গে মেলামেশা করেন এবং নানা ক্ষেত্রে এগিয়ে যান। এটি তাদের সাফল্যও এনে দেয়।