ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস দূর করে ডাবের পানি

71
ছবি: সংগৃহীত

ডাবের পানি অনেক মজাদার একটি পানি। প্রাকৃতিক এই পানির অনেক চাহিদা। ডাবের পানি হচ্ছে ডাবের ভেতরের স্বচ্ছ ও সুপেয় পানি।

ডাবের পানিতে যে পরিমাণ ভিটামিন ও মিনারেল রয়েছে তা অনেকের জানা নেই। ডাবের পানি অত্যন্ত পুষ্টিকর একটি পানীয়।

আসুন জেনে নেওয়া যাক ডাবের পানি পান করলে মানুষের শরীরের কোন কোন উপকার হয়ে থাকে-

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে
রিবোফ্লেবিন, নিয়াসিন, থায়ামিন এবং পেরিডক্সিন সমৃদ্ধ ডাব-এর পানি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত করতে সহায়তা করে। এছাড়া এর অ্যান্টিভাইরাল ও অ্যান্টিব্যকটেরিয়াল উপাদান বিভিন্ন ধরনের ভাইরাসের আক্রমণ থেকেও রক্ষা করতে সহায়তা করে।

ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস দূর করে
ডাবের পানি ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস দূর করতে সাহায্য করে থাকে। এটি ত্বকের জন্য বিশেষভাবে কার্যকরী। নানা সমস্যা যেমন ব্রন,মেছতা, ছোপ ছোপ দাগ, উজ্জ্বলতা হারানো, ত্বকের ইনফেকশন এই সব সমস্যা দূর করে নিয়মিত ডাবের পানি পান করার অভ্যাস।

উচ্চরক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে
ডাব-এর পানি আমাদের শরীরের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে থাকে। ডাবের পানির প্রাকৃতিক মিনারেল শরীরের রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক রাখে এবং সেই সাথে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করে। এতে করে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে এবং এর পাশাপাশি অন্যান্য কার্ডিওভ্যসকুলার রোগের সম্ভাবনা কমে।

ওজন কমাতে সাহায্য করে থাকে
ওজন কমানোর জন্য ডাবের পানি দারুন কাজ করে থাকে। যেকোন চিনিযুক্ত ফলের জুসের চাইতে বেশি কাযকরী এই ডাব-এর পানি। কারণ ডাবের পানিতে বিন্দুমাত্র ফ্যাট নেই।

বয়সের ছাপ দূর করে
নিয়মিত ডাব-এর পানি পান করলে আপনার মুখে বয়সের ছাপ দূর হবে। ডাবের পানি পান করার পাশাপাশি ত্বকে সরাসরি ডাবের পানি ব্যবহারও অনেক উপকারি।

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে
ডাব-এর পানি কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে থাকে। বদহজমের কারণে কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যা নিয়মিত ডাবের পানি পান করার অভ্যাসে সহজেই দূর করা সম্ভব।

সূত্র: আয়ুর্বেদিক টিপস