পাঁচ কারনে ঘি খান

31
ছবি: সংগৃহীত

স্বাদ ও গন্ধের জন্য সমাদৃত ঘি। এটি এ উপমহাদেশের মানুষের অত্যন্ত প্রিয় ও মূল্যবান খাবার। তবে ঘি খাওয়ার কোনো উপকারিতা রয়েছে কি না, তা নিয়ে অনেকেই সন্দিহান। এ লেখায় তুলে ধরা হলো ঘি খাওয়ার পাঁচটি উপকারিতার কথা। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

১. শুষ্কতা প্রতিরোধ
ঘি ত্বকের শুষ্কতা প্রতিরোধে খুবই কার্যকর। নিয়মিত ঘি খেলে এটি ত্বকের শুষ্ক ভাব প্রতিরোধ করে। এ ছাড়া এটি চুলেও মাখা যায়, যা চুল রুক্ষ হয়ে যাওয়া প্রতিরোধ করে।

২. ভিটামিন এ
অত্যন্ত প্রয়োজনীয় ভিটামিন এ রয়েছে ঘি-এ। এটি দেহের নানা ধরনের উপকার করে। এটি সুস্থ চোখের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় বিষয়।

৩. সুস্থ অস্থিসন্ধি
দেহের হাড়ের সংযোগস্থলের সমস্যা দূর করতে কার্যকর ঘি। মূলত হাড়ের সংযোগস্থলের পিচ্ছিল পদার্থ বৃদ্ধি করে ঘি। এতে নড়াচড়া সহজ হয় এবং ব্যথা উপশম হয়।

৪. স্ট্যাবল স্যাচুরেটেড বন্ডস
বহু তেলেই রয়েছে ক্ষতিকর উপাদান, যা উচ্চতাপে রান্না করলে তৈরি হয়। তবে ঘি রান্না করা হলেও কিছু ক্ষতিকর তেলের মতো ফ্রি র‌্যাডিকেলস নির্গত হয় না। এ কারণে এটি রান্নায় ব্যবহার করা যায় নিরাপদে।

৫. মস্তিষ্কের উপকার
আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রমতে ঘি মস্তিষ্কের জন্য উপকারী। এটি মস্তিষ্ককে শাণিত করে এবং তীক্ষ্ণ বুদ্ধিসম্পন্ন করতে সহায়তা করে। এ ছাড়া স্মৃতিশক্তিও বাড়ায় ঘি।