ছোট্ট শিশুটির দিওয়ানা কোটি মানুষ, বলতে পারেন কে ইনি?

129

প্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রীর ছোট বেলার ছবি দেখতে চান অনেকে। মনের কৌতুহল, ছোটবেলায় দেখতে কেমন ছিলেন তিনি, কি করতেন, কি খেতেন-এমন সব প্রশ্ন যাদের মনের মধ্যে তাদের জন্য এই ধারাবাহিকতা-

ছবিতে যাকে দেখতে পাচ্ছেন তিনি শাহরুখ খান। নিচে থাকলো তার জীবনের সংক্ষিপ্ত তথ্য-

শাহরুখ খানকে অনানুষ্ঠানিকভাবে ‘এসআরকে’ হিসাবে ডাকা হয়, একজন বিখ্যাত ভারতীয় অভিনেতা, প্রযোজক, টেলিভিশন উপস্থাপক এবং মানবপ্রেমিক। ১৯৮০ এর শেষের দিকে বেশ কিছু টেলিভিশন সিরিয়ালে অভিনয়ের মাধ্যমে তাঁর অভিনয় জীবন শুরু করেন।

১৯৯২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত দিওয়ানা চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তিনি চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশ করেন। এরপর তিনি অসংখ্য বাণিজ্যিকভাবে সফল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন এবং খ্যাতি অর্জন করেন।

শাহরুখ খান চৌদ্দবার ফিল্মফেয়ার পুরস্কার লাভ করেন। এর মধ্যে আটটিই সেরা অভিনেতার পুরস্কার। তিনি বলিউডের অন্যতম সফল অভিনেতা। হিন্দি চলচ্চিত্রে অসাধারণ অবদানের জন্য ২০০২ সালে ভারত সরকার শাহরুখ খানকে পদ্মশ্রী পুরস্কারে ভূষিত করে।

বর্তমানে শাহরুখ খান পৃথিবীর সফল চলচ্চিত্র তারকা। তাঁর প্রায় ৩.২ বিলিয়ন ভক্ত এবং তাঁর মোট অর্থসম্পদের পরিমাণ ২৫০০ কোটি রুপি-এরও বেশি। ২০০৮ সালে নিউজউইক তাঁকে বিশ্বের ৫০ ক্ষমতাশীল ব্যক্তির তালিকায় স্থান দেয়।

ওয়েলথ-এক্স সংস্থার বিচারে বিশ্বের সবথেকে ধনী হলিউড, বলিউড তারকার তালিকায় শাহরুখ খান দ্বিতীয় স্থান পেয়েছেন। এক্ষেত্রে তিনি হলিউড তারকা ব্রাড পিট, টম ক্রুজ, জনি ডেপ-দের পিছনে ফেলে দিয়েছেন। অভিনেতা হিসেবে বৈশ্বিক অবদানের জন্য শাহরুখ খানকে সম্মানসূচক ডক্টরেট উপাধিতে ভূষিত করেছে স্কটল্যান্ডের প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয় এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়।

শাহরুখ খান ১৯৬৫ সালে একটি মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন পিতা নতুন দিল্লি, ভারতের পাঠান বংশদ্ভুত। তাঁর পিতা তাজ মোহাম্মদ খান একজন ভারতীয় স্বাধীনতা কর্মী ছিলেন। খানের মতে, তার দাদা ছিল প্রকৃতভাবে একজন আফগানিস্তান নাগরিক। তাঁর মা, লতিফ ফাতিমা, ছিল মেজর জেনারেল শাহ নওয়াজ খান জানজুয়া রাজপুত জাতি, ভারতীয় আজাদ হিন্দ ফৌজ সুভাষচন্দ্র বোস এর দত্তক মেয়ে।

খানের পিতা ভারত বিভাগ হওয়ার আগে কিসা খাওয়ানি বাজার, পেশাওয়ার থেকে নয়া দিল্লি চলে আসেন। যখন তার মায়ের পরিবার রাওয়ালপিন্ডি, ব্রিটিশ ভারত থেকে এসেছিলেন। খানের শেহনাজ নামে একজন বড় বোন আছে। তাঁর জন্ম নাম শাহরুখ ছিল নির্দিষ্ট, কিন্তু পছন্দ করে তার নাম শাহ রুখ খান লিখিত হয়, এছাড়াও সাধারণত এসআরকে হিসাবে উল্লেখ করা হয়।

বেড়ে ওঠা রাজেন্দ্র নগর এলাকার মধ্যে৷ খান ২৫ অক্টোবর, ১৯৯১ সালে গৌরী খান এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন৷ তাদের প্রথম সন্তান আরিয়ান খান৷ তাদের কন্যা সুহানা খান এবং সর্বশেষ আব্রাম খান৷ খান ইসলাম ধর্ম পালন করলেও তিনি তার স্ত্রীর ধর্ম হিন্দু কে সম্মান করেন৷ তার সন্তানেরাও দুটি ধর্মই পালন করে৷ শাহরুখ খানের উচ্চতা পাঁচ ফুট আট ইঞ্চি।