ছাতা মাথায় নিয়ে ক্লাস

211

ছাতা মাথায় নিয়ে ক্লাস করে ছাত্র-ছাত্রীরা। শুনে অবাক হচ্ছেন? কারণ হলো স্কুল ভবনের চাল ফুটো। বৃষ্টি হলেই শ্রেণিকক্ষে পানি পড়ে।

বাধ্য হয়েই ছাত্র-ছাত্রীরা ছাতা মাথায় নিয়ে ক্লাসের বেঞ্চে বসে। এমন দুর্দশার চিত্র মিলেছে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার শিবের বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

দেখা গেছে, একটি নতুন ভবন থাকার পরেও তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীরদের পুরনো আধাপাকা টিনশেডের কক্ষে পাঠদান করছেন শিক্ষকরা। বৃষ্টির সময় টিনের চালার ফুটো দিয়ে পানি প্রবেশ করছে শ্রেণিকক্ষে। অনেক শিক্ষার্থীকে শ্রেণিকক্ষেই ছাতা মাথায় দেখা গেল।

ছাত্র-ছাত্রীরা জানালো, গত দুই দিন ধরে ছাতা মাথায় ক্লাস করছে। ছাতা ব্যবহারের পরও বই-খাতা ও পোশাক ভিজে যায়। তারপরেও বৃষ্টিতে ভিজে ক্লাস করছে তারা।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রুনী সাঈদা বেগমের দাবি, এক বছর আগে তিনি এ স্কুলে এসেছেন। এরপর পুরনো টিনশেড ঘর সংস্কারের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছেন। কিন্তু কোনো সুফল মেলেনি।

উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা রাশেদুল ইসলাম মণ্ডল বলেন, ‘মঙ্গলবার দুপুরে ওই বিদ্যালয় পরিদর্শন করেছি। নতুন ভবনে কক্ষ থাকার পরেও পুরনো টিনশেডের শ্রেণিকক্ষে ক্লাস করাচ্ছেন প্রধান শিক্ষক। আর নতুন ভবনের কক্ষে স্টোর রুম করেছেন। ফলে এ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। পুরনো টিনশেডের ঘরে পাঠদান না করাতে প্রধান শিক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত শ্রেণিকক্ষগুলো দ্রুত সংস্কারের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’