চুল পাকা কমাবে সরিষার তেল

42
ছবি: সংগৃহীত

বয়স বাড়ার সাথে সাথে চুল সাদা হয়ে যাওয়ার বিষয়টি স্বাভাবিক। কিন্তু বর্তমানে নির্দিষ্ট বয়সের আগেই চুল পাকার সমস্যা বাড়ছে। এর অন্যতম কারণ আমাদের জীবনযাপন। চুল অসময়ে তখনই পাকতে শুরু করে যখন চুলের কোষগুলো রঞ্জক পদার্থ উত্পাদন তৈরি করা বন্ধ করে দেয় যা চুলে কালো রঙ জোগায়। কিছু ক্ষেত্রে, চুল অসময়ে পাকে ভিটামিন বি-১২ এর অভাবে। তবে আপনি চাইলে অতি সহজে সরিষার তেল ব্যবহার করে এই সমস্যার সমাধান পেতে পারেন।

অসময়ে চুল পাকা আটকাতে সবচেয়ে কার্যকর প্রতিকার হল সরিষার তেল। এই তেল সম্ভবত প্রতিটি পরিবারের রান্নাঘরেই থাকে। জেনে নিন কীভাবে চুলে সরিষার তেল কাজ করে।

১. সরিষার তেল আমাদের দেশীয় উপাদান। কাঠের ঘানির সরিষার তেলের খোঁজ করুন। খুস্কি আর শুষ্ক চুলের জন্য এটি অনেক ভালোভাবে কাজ করে।

২. সরিষার তেল উপকারী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ। এতে সেলেনিয়াম রয়েছে যা চুলের গোড়া এবং চুলের স্বাস্থ্য বজায় রাখার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা পালন করে।

৩. সরিষার তেল প্রাকৃতিক ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ। এই অ্যাসিড চুলের ফলিকল ও চুলের গোড়ার জন্য অপরিহার্য।

৪. সরিষার তেল অ্যান্টি ফাঙ্গাল এবং অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল। এই উপাদানগুলো অসময়ে চুল পাকার হাত থেকে রক্ষা করে। চুলের গোড়ার স্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্যও এই উপাদাগুলো ভালো কাজ করে।

কীভাবে চুলে সরিষার তেল ব্যবহার করবেন:
১. তিন চা চামচ (পাঁচশ মিলিগ্রাম) সরিষার তেলের সাথে ভালো মানের ঠান্ডা নারকেল তেল (দু’শ মিলি), এক চা চামচ ভাজা মেথি বীজ এবং এক চা চামচ গুঁড়ো কারি পাতা যোগ করুন। এই মিশ্রণ প্রায় এক সপ্তাহের জন্য রেখে তারপর চুল ও চুলের গোড়ায় এই তেল ম্যাসাজ করুন।

২. এক মিনিট ধরে সরিষার তেল গরম করে আস্তে আস্তে আপনার চুলের গোড়া এবং চুলে এটি ম্যাসাজ করতে পারেন।

৩. এই তেল দিয়ে একদিন পর পর ১০ দিন ম্যাসাজ করলে এর ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। আপনার পছন্দ অনুযায়ী সপ্তাহে দুইবার বা তিনবার এই তেল দিয়ে চুলে ম্যাসাজ করতে পারেন।

৪. ভালো ফল পেতে মাথা ধোয়ার আগে এক থেকে দুই ঘন্টা এই তেল মাথায় লাগিয়ে রাখার চেষ্টা করুন। এছাড়াও সারারাত মাথায় সরিষার তেল লাগিয়ে রাখতে পারেন।

সূত্র: এনডিটি