চাকুন্দার ঔষধি গুণাগুণ

45

বাংলাদেশের গ্রামঞ্চলের একটি অতি পরিচিত গাছ হচ্ছে চাকুন্দা। আগাছা হিসেবে এই গাছ পরিচিত হয়ে থাকে। এই গাছের ফুল পাতা ফল দিয়ে বাচ্চারা খেলে থাকে। এটি এক ধরনের গুল্ম। এর নানা ধরনের ঔষধি গুণ আছে। এর পাতার আকৃতি গোল এবং ব্যাস প্রায় এক ইঞ্চি মতো হয়ে থাকে। পাতাগুলো কোমল লোমযুক্ত। কাণ্ডের দুই দিকে পাতাগুলো থাকে। পাতার অগ্রভাগ প্রায় গোলাকার।

হিন্দিভাষী অঞ্চলে একে বলে চক বড়, উড়িষ্যার অঞ্চলে চামুন্ডা বলে। চাকুন্দা সাধারণত দক্ষিণ এশিয়ার উদ্ভিদ। বাংলাদেশ, ভারত নেপালসহ অন্য দেশসমূহ এই গাছ পাওয়া যায় । এর মূল বীজ ঔষধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়। চাকুন্দা সুস্বাদু।

উপকারিতা
কুষ্ঠরোগে:
চাকুন্দা পাতা ও মূল ভালো করে সেদ্ধ করে সেই প্রতিদিন সেবন করলে ও এর শিকড় বেটে ঘিয়ের সাথে কুষ্ঠ ক্ষতে লাগালে কুষ্ঠ রোগ ভালো হয়।

তড়কা নিরাময়ে:
তাড়কা শিশুর রোগ। এই রোগ হলে চাকুন্দা ফলের বীজ গুড়ো করে দুধের সাথে শিশুকে খাওয়ালে তাড়কা রোগ ভালো হয়।

ফোঁড়া সারাতে:
ফোঁড়া হলে চাকুন্দা পাতা বেটে ফোঁড়ার ওপর প্রলেপ দিলে ফোঁড়া ভালো হয়।

কৃমি প্রতিরোধে:
কৃমি হলে চাকুন্দার বীজ চূর্ণ্ করে মধুর সাথে মিশিয়ে সেবন করলে কৃমি বেরিয়ে আসে।

কাশি হলে:
খুব কফ হলে চাকুন্দা পাতা সেদ্ধ করে পানি হালকা গরম অবস্থায় খেলে উপকার পাওয়া যায়।