খুশকির সমস্যা আদার রস

372

রান্নার ক্ষেত্রে আদা খুবই প্রয়োজনীয় একটি উপাদান। এটি শুধু খাবারের স্বাদই বাড়ায়ে না , ঠাণ্ডা-কাশি সারাতেও এটি দারুন উপকারী।অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকায় শরীরের প্রদাহের বিরুদ্ধেও লড়াই করার ক্ষমতা রয়েছে আদার। এমনকী চুলের স্বাস্থ্য ও খুশকি দূর করতেও আদা দারুন কার্যকরী।

আদায় অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বা অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল উপাদান চামড়া এবং চুলের গোড়ার সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারে। আদার রস চুলের গোড়ার স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধার করতে পারে এবং খুশকি সমস্যা কমাতেও সাহায্য করে।

খুশকি এবং চুলের গোড়ায় চুলকানির সমস্যা কমাতে আদার মাস্ক যেভাবে বানাবেন-

১. এক টুকরো কাঁচা আদা ছোট ছোট করে কেটে থেঁতলে নিন।

২. কুচোনো বা থেঁতলানো আদা অল্প পানি দিয়ে কম আঁচে ফুটিয়ে নিন। ধীরে ধীরে পানির রঙ বদলে হালকা ঘোলাটে হলুদ হয়ে উঠলে চুলা বন্ধ করে দিন।

৩. এখন আদার রস ছাঁকনি দিয়ে ভাল করে ছেঁকে নিন।

৪. ঠাণ্ডা হওয়ার পর আদার পানি একটি ছোট স্প্রে বোতলে ঢেলে রাখতে পারেন। সরাসরি আপনার চুলের গোড়ায় স্প্রে করতে পারেন মিশ্রণটি।

৫. স্প্রে করার পর আধ ঘন্টা পর্যন্ত চুলের গোড়া আদার রসে ভিজতে দিন। তারপর একটি হালকা অ্যান্টি ড্যান্ড্রফ শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে একবার আদার রস দিয়ে এভাবে চুলের যত্ন নিলে কমে যাবে খুশকির সমস্যা।