হাঁড়িভাঙার সন্ধানে…

বৈচিত্র ডেস্ক : ভ্রমণপ্রিয় মানুষ প্রতিনিয়ত সন্ধান করেন নতুন কোনো গন্তব্য। নতুন গন্তব্য পথে সে খুঁজে নেয় অজানাকে। আপন করে নেয় অজানা পথকে। তাই এবার ঈদের ছুটিতে আপনি চাইলে ঘুরে আসতে পারেন  বিখ্যাত হাঁড়িভাঙা আমের বাগান রংপুরের পদাগঞ্জে।

ইতিহাস

জনশ্রুতি আছে, পদাগঞ্জের এক ব্যক্তি বাজার থেকে আম কিনে আনেন। সেই আম খেয়ে তিনি বীজটি রেখে দেন একটি পরিত্যক্ত হাঁড়িতে। ওই হাঁড়িতেই বীজ থেকে চারাগাছ বের হয়ে আসে। আর সেই গাছটি তিনি বাড়ির পাশে রোপণ করেন। ওই ব্যক্তির নিবিড় পরিচর্যায় গাছে আম ধরতে শুরু করে। হাঁড়ি থেকে ওই আমের উৎপত্তি হওয়ায় এর নাম হয় হাঁড়িভাঙা আম।

যা দেখবেন

পদাগঞ্জে এসেই চেখে পড়ল বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে শুধু হাঁড়িভাঙা আমের বাগান।  যেদিকে দুচোখ যায়, সেদিকে শুধু বাগান আর বাগান। এমন কেউ নেই, যিনি বাড়ির আঙিনা, উঠান কিংবা ফসলি জমিতে আমের গাছ রোপণ করেননি। চারদিকে আমের গন্ধে মোহিত করছে। কোথাও কোথাও দেখা পাবেন অস্থায়ী ছাউনি দিয়ে বাগান পাহারা দিয়ে চলছেন চাষি। কেউ কেউ আবার গাছের পরিচর্যার কাজে ব্যস্ত।  সেখানকার প্রতিটি গাছের বয়স তিন থেকে চার বছর। প্রতি গাছ থেকে তিন থেকে চার মণ আম পাওয়া যায়। আম পাকলে কিছুটা লালচে রং ধারণ করে। প্রতিটি আমের ওজন দুইশ থেকে চারশ গ্রাম পর্যন্ত হয়ে থাকে।

পথের ঠিকানা

ঢাকা থেকে ট্রেনে করে রংপুর ভাড়া নেবে ৩৯০ থেকে ১৩৯৫ টাকা অথবা বাসে করে (এসআর ট্রাভেলস, এসএ পরিবহন, নাবিল এন্টারপ্রাইজ, শ্যামলী পরিবহন প্রতিটির এসি/ননএসি বাস আছে) রংপুর ভাড়া ৪৫০ থেকে ৬৫০ টাকা। রংপুর শহর থেকে  অটো করে পদাগঞ্জ রিজার্ভ নিলে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা,  বাস করে গেলে ৩০ টাকা।