সফল হতে ত্যাগ করুন ১০ অভ্যাস

নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে কতজনে কত কিছুই না করেন। কারো জীবনে সহজেই সফলতা আসে আবার কারো জীবনে ঘুরেফিরে সফলতা আসে। সফলতার জন্য যে ১০ টি বিষয় ত্যাগ করা উচিত বলে মনে করে বিশেষজ্ঞগণেরা তা নিচে দেয়া হলো।

মিথ্যা আশ্বাস
কাউকে প্রতিশ্রুতি দিলে তা বাস্তবায়ন করতে হবে। আর করতে না পারলে প্রতিশ্রুতি দেওয়ারই দরকার নেই।

দোষারোপের অভ্যাস
যাদের সঙ্গে চলছেন, তাদের দোষত্রুটি থাকবেই। বরং না থাকাটাই অস্বাভাবিক। এ কারণে অন্যকে দোষারোপের অভ্যাস বাদ দিন।

অতীতে প্রাধান্য
অতীত উপেক্ষা করার কোনো উপায় নেই। কারণ, তা থেকে অনেক শেখার আছে। তাই বলে বর্তমান ভুলে অতীতকেই সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দিলে চলবে না।

সবাইকে খুশি রাখার চেষ্টা
সবাইকে খুশি রাখব-এ প্রচেষ্টায় কেউ কোনো দিন সফল হতে পারেনি। তাই সফল হতে চাইলে আপনাকেও এই ধান্দা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলতে হবে।

গোঁড়ামি
পরিবর্তনকে বরণ করে নিতে হয়। একে এড়িয়ে যাওয়া যায় বটে, কিন্তু এগিয়ে যাওয়া যায় না। তাই পেছাতে না চাইলে পরিবর্তনকে মেনে নিন।

পরচর্চা
এই অভ্যাস খুব খারাপ। পরচর্চা সাময়িক আনন্দ দিতে পারে। কিন্তু অন্যের সঙ্গে তা সম্পর্ক খারাপ করে দেয়।

নিখুঁত হওয়ার চেষ্টা
তাত্ত্বিক কিংবা ব্যবহারিক- কোনো অর্থেই নিখুঁত কিছু করা কিংবা হওয়া সম্ভব নয়। কোনো মানুষই বলতে পারবেন না যে তিনি ত্রুটিহীন। অতএব নিখুঁত হওয়ার এমন প্রচেষ্টা বাদ দিন।

ছোট লক্ষ্য
অর্জনের আকার লক্ষ্যের চেয়ে খুব একটা বড় হয় না। সমান হয় কিংবা লক্ষ্যের চেয়ে ছোট হয়। তাই ছোটখাটো বিষয় ভুলে বড় খেলায় মেতে উঠুন।

ভাগ্যে নির্ভরশীলতা
অনেকেই ভাগ্যে বিশ্বাস রাখেন। কিন্তু এর জন্য হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকা উচিত নয়। চেষ্টা চালিয়ে যান; নইলে ভাগ্যের ওপর বিশ্বাস হারাবেন।

অন্যের মতামতে অনীহা
অনেকেই বিশ্বাস করেন, সফল হতে হলে নিজের বুদ্ধিতে চলতে হবে। অন্যের বুদ্ধি শোনা যাবে না। কিন্তু কোনো বিষয়ে অন্য মানুষ তো আপনার চেয়ে বেশি জানতেই পারে; তাই না?