বন্ধুর স্মরণে দ্বিতীয় একক ম্যরাথন

এভারেস্টজয়ী প্রয়াত বন্ধু সজল খালেদকে স্মরণ করে কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভে দ্বিতীয় বারের মতো একক ম্যারাথন করেছেন গাজী মুনছুর আজিজ। ৭ অক্টোবর তিনি এ ম্যরাথন করেন।

লাবনী সৈকত পয়েন্ট থেকে সকাল ছয়টায় ম্যারাথন শুরু করেন। ইনানী সেতুর কাছ থেকে আবার লাবনী পয়েন্ট এসে বিকেল ৪টায় তিনি শেষ করেন ম্যারাথনের ৪২.১৯৫ কিলোমিটার পথ।

বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত আর মেরিন ড্রাইভের সৌন্দর্য সত্যিই দারুণ। এ সৌন্দর্য বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে ও পর্যটনের উন্নয়নে সজল খালেদ বাংলা মাউন্টেইনিয়ারিং অ্যান্ড ট্রেকিং ক্লাবের ব্যানারে এ পথে ২০০৮ সালে প্রথমবার বাংলা ম্যারাথনের প্রতিযোগিতা করেন। সেই লক্ষে ২০০৯ ও ২০১০ সালেও তার উদ্যোগে ও এক্সট্রিমিস্টের আয়োজনে এ পথে ম্যারাথন হয়েছিল। তিনবারের ম্যারাথনেই আজিজ অংশ নেন ও সফলভাবে সম্পন্ন করেন।

২০১৩ সালে এভারেস্ট জয় করে সজল এভারেস্টের কোলেই ঘুমিয়ে পড়েন অনন্তকালের জন্য। গাজী মুনছুর আজিজ বলেন, আমার ম্যারাথনের উদ্দেশ্য মেরিন ড্রাইভে ম্যারাথন প্রতিযোগিতার মাধ্যমে দেশি-বিদেশি পর্যটকদের আকর্ষণ, পর্যটনের উন্নয়ন এবং সৈকত ও সৈকত পাড়ের জীববৈচিত্র্য রক্ষার তাগিদ। পাশাপাশি এ ম্যাারাথনের মাধ্যমে মেরিন ড্রাইভকে সজল খালেদের নামে নামকরণের আহবান জানাই।