ডাবের পানি দিয়ে রূপচর্চা

ডাবের পানি দিয়ে নিয়মিত ত্বক পরিষ্কার করলে পাওয়া যায় দাগহীন ত্বক। ডাবের পানিতে রয়েছে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন সি, এনজাইম, অ্যামিনো অ্যাসিড ও প্রয়োজনীয় মিনারেল। এগুলো ত্বক ও চুলের যত্নে অনন্য। দাগ দূর করার পাশাপাশি ত্বকে প্রাকৃতিক জৌলুস নিয়ে আসে ডাবের পানি। এছাড়া চুলের রুক্ষতা দূর করতেও এটি অনন্য।

জেনে নিন রূপচর্চায় ডাবের পানি ব্যবহার করবেন কীভাবে-

ফেসপ্যাক হিসেবে
১ চা চামচ হলুদ গুঁড়া ও ১ চা চামচ চন্দন গুঁড়ার সঙ্গে প্রয়োজন মতো ডাবের পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। ত্বকে ফেসপ্যাকটি লাগিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। প্রথমে ডাবের পানি দিয়ে ধুয়ে তারপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আরেকটি ফেসপ্যাকও বানিয়ে ফেলতে পারেন মুলতানি মাটি ও ডাবের পানি দিয়ে। এজন্য মুলতানি মাটির সঙ্গে ডাবের পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। পাতলা করে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন এটি। মুখের পাশাপাশি গলা, ঘাড় ও হাতের ত্বকেও ব্যবহার করতে পারেন এই ফেসপ্যাক। শুকিয়ে গেলে ডাবের পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। তারপর সাধারণ পানি দিয়ে আবারও ধুয়ে মুছে নিন ত্বক।

ফেসওয়াশ হিসেবে
ফেসপ্যাক তৈরি করার মতো সময় হাতে না থাকলে ডাবের পানির ঝাপটায় মুখ ধুয়ে নিন। প্রতিদিন দুইবার এটি ব্যবহার করলে ত্বক হবে দাগহীন উজ্জ্বল।

চুলের যত্নে
চুল ঝলমলে করতেও জুড়ি নেই ডাবের পানির। নারকেল তেল অথবা অলিভ অয়েল চুলে ব্যবহারের আগে সামান্য ডাবের পানি মিশিয়ে নিন। এটি মাথার ত্বকের শুষ্কতা দূর করতে সাহায্য করবে। পাশাপাশি চুলে নিয়ে আসবে ঝলমলে ভাব। সপ্তাহে তিনদিন চুলে ব্যবহার করতে পারেন ডাবের পানি।