ওজিলের ‘বর্ণবাদী’ অভিযোগ অস্বীকার করেছে জার্মানি

মেসুত ওজিলকে নিয়ে ‘বর্ণবাদী’ আচরণের অভিযোগ সরাসরি অস্বীকার করেছে জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (ডিএফবি)। পাশাপাশি তারা আরও জানিয়েছে, এমন অবমাননা থেকে ওজিলকে রক্ষা করতে অনেক কিছুই করতে পারতো তারা।

জার্মান এফ এর’র একটি বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা বর্ণবাদের ব্যাপারটি পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করছি। ডিএফবি বহু বছর ধরে জার্মানির জাতিগত ঐক্য তৈরিতে কাজ করে আসছে।’

এর আগে জার্মান ফুটবলের ওপর ‘বর্ণবাদ ও অসৌজন্যমূলক’ আচরণের অভিযোগ তুলে জার্মান ফুটবল থেকে অবসরের ঘোষণা দেন মেসুত ওজিল। ২০১৪’র বিশ্বকাপ শিরোপা জেতা এই ফুটবলার জানান, বিশ্বকাপে জার্মানির অনাকাঙ্খিত হারের পর তিনি অনেক হুমকি ও বাজে মেইল পেয়েছিলেন। এ ব্যাপারে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি ডিএফবি।

অবশ্য ওজিলের অবসরের পর বিষয়টি নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছে সংস্থাটি।

‘বর্ণবাদ ও অসৌজন্যমূলক’ অবমাননাটি মূলত সামনে আসে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ানের সঙ্গে তোলা একটি ছবি প্রকাশ হওয়ার পর। লন্ডনে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ছবিটি তোলেন তুরস্ক বংশোদ্ভূত এই তারকা মিডফিল্ডার। এ সময় তাকে আর্সেনালের একটি জার্সি উপহার দেন এরদোয়ান।

সে সময় উপস্থিত ছিলেন জার্মানির আরেক তুর্কি ফুটবলার ইকলে গুন্ডোগান। তিনিও পরে দুঃখ প্রকাশ করেন। তবে ওজিলের কাছে এই সাক্ষাতের সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা চায় ডিএফবি। যেখানে রাজনৈতিক কারণে জার্মানির সঙ্গে তুরস্কের মতবিরোধ রয়েছে।