আপনি কি সুখী নারী? মিলিয়ে নিন লক্ষণ

ছবি: ইন্টারনেট

নারীদের একা থাকা যেন অসম্ভব বিষয়। কিন্তু বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পরিসংখ্যানে একাকী নারীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এরা অবিবাহিত বা বিচ্ছেদ ঘটেছে কিংবা বিধবা। সাংবাদিক এবং লেখকরাও একাকী নারীর জীবন ও সামাজিক অবস্থান নিয়ে লেখালেখি করছেন।

পুরস্কার বিজনয়ী সাংবাদিক রেবেকা ট্রাইস্টার ‘অল দ্য সিঙ্গেল লেডস’ শিরোনামে আমেরিকার একাকী নারীদের বিশদ তুলে ধরেছেন। পাশের দেশ ভারতেও কিন্তু একা নারীদের পরিসংখ্যান তুলে ধরা হয়েছে।

সেখানে বলা হয়, দেশটির ৩৫৩ মিলিয়ন নারীর ২১ শতাংশই একাকী যাদের বয়স ২০ এর বেশি। ২০০১-২০১১ সালের মধ্যে এদের সংখ্যা ৪০ শতাংশে উপনীত হয়েছে। আধুনিকতার সঙ্গে নারীর একা থাকার বিষয়টি আর আগের মতো অসম্ভব বলে বিবেচিত হয় না। অনেক নারীই তাই একা থাকার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন বেশ সহজে।

বিশেষজ্ঞরা একা থাকার অনেক ভালো দিকও ব্যাখ্যা করছেন। আসলে একা নারী তার আত্মপরিচয় আরো স্পষ্টভাবে বুঝতে পারেন। এখানে দেখে নিন, একা হয়ে কোনো নারী সত্যিকার অর্থেই ভালো আছেন তার কিছু দারুণ লক্ষণ।

একা থাকতেই ভালো লাগে:
আপনি কোনো কারণে লজ্জিত বা অন্তর্মুখী নন। এমনিতেই একা থাকতেই ভালো লাগে আপনার। অর্থহীন ডেটিং দিতেও মন চায় কোনো পুরুষের সঙ্গে। এমনকি কোনো সম্পর্কে জড়িয়ে থাকলেও বাজে সময় দিতে ভালো লাগে না। বরং নিজের একান্ত শখের কাজ বা পেশাগত কাজে ব্যস্ত থাকতেই ভালো লাগে।

কিংবা একাকী সময় দারুণ উপভোগ্য হয়ে ওঠে। আমেরিকান সাইকোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের বার্ষিক কনফারেন্সে বলা হয়, একাকী নারীরা আরো সুখকর সামাজিক জীবন লাভ করেন। তারা আরো বেশি কাছের মানুষদের সঙ্গে সময় কাটাতে পারেন। এমনটা হলে একাকী থেকে আপনি আসলেই সুখী।

সম্পর্ক নিয়ে ব্যস্ত থাকার ইচ্ছা নেই:
সমমনা মানুষ এবং স্বজনদের সঙ্গেই সময় কাটাতে ভালো লাগে আপনার। কিন্তু নতুন কারো সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে তার পেছেন সময় দেওয়ার কোনো ইচ্ছাই জাগে না মনে। এ নিয়ে কোনো আক্ষেপও নেই মনে। তাহলে আপনি কিন্তু ভালোই আছেন। অযথা সম্পর্কঘটিত পেরেশানিতে পড়ে সুখ নষ্টের কোনো প্রয়োজন নেই বলেই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

ব্যক্তি স্বাধীনতা রক্ষায় সচেষ্ট:
এ বিষয়ে আপনি খুবই সিরিয়াস। অন্যের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে নিয়ম-কানুনের বেড়াজালে আটকাতে চান না আপনি। নিজের খেয়াল খুশিমতো থাকতেই ভালো লাগে। ব্যক্তি স্বাধীনতা আপনার কাছে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কারো হস্তক্ষেপ আপনার মোটেও কাম্য নয়। এমনটা হয়ে থাকলে অবশ্যই আপনি একাকী নারী হয়ে সুন্দর জীবন কাটাচ্ছেন।

প্রভাবিত নন:
আপনার বন্ধবী বা সহকর্মী বা সহপাঠি সম্পর্কে জড়াচ্ছেন কি না, এ নিয়ে আপনার কোনো মাথাব্যথা নেই। হয়তো পরিবার ও বন্ধুমহল আপনাকে বোঝানোর চেষ্টা করে যে, মেয়ে হয়ে একা থাকা নিরপদ নয়। কিন্তু বাস্তবতা বোঝার পরও আপনি একা থাকতেই পছন্দ করেন। এমন হলে সমস্যা নেই। আপনি আসলে একা থাকতেই ভালোবাসেন।